ঠিকানা বিহীন রঙিন খাম-০১

প্রিয় চাতকিনী,
মাঝে মাঝে নীরবতা আর দূরত্ব মনের সব আক্ষেপ ধুয়ে দেয়। তাই হয়তো অনেকেই পরিচিত জগত ছেড়ে মাঝে মাঝে অজানায় হারিয়ে যায়। শুধু তারাই থেকে যায় যারা চেনা জগতে আসলে অপরিচিত। অনেকটা মুখোশ পড়া মানুষের মতই। যখন সময়ের আয়নায় ঘুরে তাকাই নিজেকেও মুখোশ পড়া মনে হয়, সুখী মানুষের মুখোশ পড়া। বোকার মতো জেনেও অন্ধকারে কিছু একটা খুঁজে বেড়াই যার অস্তিত্ব আলোতে। -“আচ্ছা কখনও কী সঙ্গীহারা শালিকের হাহাকারের সুর শুনেছ?” -“কখনও কী ছটফট করতে দেখছ?” সুখী মানুষের মুখোশ পড়ে অনেকটা তেমন ছটফট করে যাচ্ছি, বুকের পাঁজরে বন্দি শালিক একাকী আর্তনাদের সুরে ফেটে পড়ছে। তাই হয়তো দূরে কোথাও হারিয়ে যেতে ইচ্ছে করছে, না পাওয়া অভিপ্রায় আর প্রিয় সকলের আঘাত ও অবিশ্বাস্য ঘৃণা ভুলে সময়ের পাতায় এক নতুন শাশ্বত যাত্রা শুরুর সুপ্ত অভিপ্ৰায় বুকে চেপে। ভঙ্গুর সময় পালিয়ে গেছে, তাই এই কাল্পনিক অভিপ্ৰায়ও অপূর্ণ রয়ে গেল। তাই নির্ঘুম ও নীরব দুঃখ ভুলার এক শাশ্বত অপেক্ষা। এক নিস্তব্ধ অপেক্ষা।

ইতি
নির্ঘুম ও নীরব পথিক।