সিঙ্গাপুর সম্পর্কে জেনে নিন দারুণ ৭টি তথ্য

মালয়েশিয়ার দক্ষিণের একটি দ্বীপ-রাষ্ট্র সিঙ্গাপুর। উন্নত ও ছিমছাম এ দেশটি এশিয়ার সুন্দরতম দেশের একটি। সেখানে স্থায়ীভাবে বসতি গড়েছেন এক মার্কিন দম্পতি শ্যারন এবং গ্রেগ গ্রাহাম। তারা জানিয়েছেন সিঙ্গাপুর সম্পর্কে দারুণ ৭টি তথ্য।

১. এ দেশের সবাই ইংরেজি ভাষায় কথা বলেন। গ্রেগের কাছে মনে হয়, এটা পেনসিলভেনিয়ার বিচ্ছিন্ন একটি অংশ। এ দেশের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়া একেবারে সহজ। এ দেশের প্রতিটি রাস্তার নির্দেশক সাইনবোর্ড ইংরেজিতে লেখা। এ ভাষায় কথা বলতে পারেন না এমন মানুষ দুর্লভ।

২. এ দেশের মানুষ নিজেদের চরমভাবে নিরাপদ মনে করেন। অথচ তারা কদাচিৎ পুলিশ দেখেন। চারদিকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দেখা না মিললেও কেউ এখানে ভয়ে ভয়ে সময় কাটান না। সাধারণত ঝামেলা না হওয়া পর্যন্ত কোনো পুলিশকে দেখতে পাওয়া যায় না। অথচ ঝামেলা পাকানো মাত্রই তারা চলে আসবে।

৩. সিঙ্গাপুরের ডিপার্টমেন্ট অব স্ট্যাটিস্টিকস-এর মতে, বহু জাতি-ধর্ম-বর্ণের মানুষের এক বিচিত্র দেশ এটি। এদেশের ৭৪ শতাংশ মানুষ চাইনিজ, ১৩ শতাংশ মালয়, ৯ শতাংশ ভারতীয় এবং ৩ শতাংশ অন্যান্য জাতির মানুষ। এরা প্রত্যেকেই একসঙ্গে মিলে মিশে বাস করছে।

৪. এ দেশের তাপমাত্রা এবং আর্দ্রতা অনেকের সহ্য হবে না। এটাই একমাত্র ঝামেলার বৈশিষ্ট্য।

৫. এ দেশে বাস করা অনেক খরচবহুল। গোটা বিশ্বের মধ্যে প্রথম দশে স্থান করে নিয়েছে সিঙ্গাপুর। এখানে থাকা-খাওয়ার খরচ অন্যান্য উন্নত দেশের তুলনায় অনেক বেশি। এর কারণটি হলো, জিডিপি-এর ভিত্তিতে এটা পৃথিবীর শীর্ষতম ধনী দেশগুলোর একটি।

৬. সিঙ্গাপুর থেকে এশিয়ার অন্যান্য অংশে যাতায়াত অনেক সহজ এবং সুবিধাজনক। এটা একেবারে ছোট একটি দেশ। ভৌগলিকভাবে এটি এশিয়ার অন্যান্য দেশের কাছাকাছি অবস্থিত।

৭. এখানকার খাবার বড়ই সুস্বাদু। এখানকার রাস্তার পাশে যে খাবার বানানো হয়, তাই অনেক যত্নে বানানো হয়। এখানকার প্রতিটি রাত আপনার কাছে ভিন্ন আমেজের মনে হবে।

সূত্র : বিজনেস ইনসাইডার