শুরু হয়েছে ২৩ তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা

সোমবার শুরু হয়েছে ২৩ তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা; ১ জানুয়ারী সকাল ১০ টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন- ‘মাসব্যাপী বাণিজ্য মেলা-তে রাজধানীর প্রচুর মানুষ অংশগ্রহণ করে। বিনোদন লাভ করে। বাণিজ্য মেলা দেশের রপ্তানি বাড়ায় দেয়। মেলায় প্রতিদিন প্রচুর মানুষ বেড়াতে আসেন। এবারেও মেলাকে নতুনভাবে সাজানো হয়েছে। মূল ফটক তৈরি করা হয়েছে পদ্মা সেতুর আদলে। বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন আকার এবার দ্বিগুণ বাড়ানো হয়েছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী আরো বলেন, বিশ্ব ঐতিহ্যের প্রামাণ্য দলিল হিসেবে ইউনেসকো জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ১৯৭১ সালের ৭ মার্চের ভাষণকে স্বীকৃতি দিয়েছে, এই কারণে এই প্যাভিলিয়ন সুন্দর করে সাজানো হয়েছে। নতুন প্রজন্ম, দেশি-বিদেশি সকলে কাছে দেশ ও বঙ্গবন্ধুর সত্যিকার ইতিহাস জানাতেই এই প্রয়াস।

মাসব্যাপী বাণিজ্য মেলা-তে এবার প্যাভিলিয়ন ও স্টল থাকবে ৫৮৩টি।,
চীন,পাকিস্তান, হংকং, সিঙ্গাপুর, মরিশাস,শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, নেপাল, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, ইরান, তুরস্ক, ভিয়েতনাম, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত ও দক্ষিণ কোরিয়ার ৪৩টি বিদেশি প্রতিষ্ঠান এতে অংশগ্রহণ করেছে। স্টল ও প্যাভিলিয়নগুলো সুন্দর করে সাজানো হয়াএচে, শ্রমিকদের ব্যস্ত সময় কাটছে। ক্রেতাদের আকর্ষণ করতে মূল্য ছাড়সহ থাকবে অনেক অফার। বিনোদনের জন্য থাকছে ২টি শিশু পার্ক, একটি ইকো পার্ক তৈরি করা হয়েছে সুন্দরবনের আদলে।

মেলায় নিরাপত্তার জন্য ১০০টি সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। ডিএমপি ক্যামেরা মনিটর করবেন। মূল প্রবেশ পথে আর্চওয়ে ও মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে চেক করে নেওয়া হবে সবাইকে। ফায়ার সার্ভিস, সিভিল ডিফেন্স, রোভার স্কাউট, আনসার, বিজিবি, পুলিশ ও র্যাবের সদস্যরা সেবা ও নিরাপত্তার দায়িত্তে থাকবে সার্বক্ষণিক।

বাণিজ্য মেলা-কে ৩৬০ ডিগ্রি ভার্চ্যুয়াল ট্যুরে দেখার বাবস্থা করার চিন্তাভাবনা করা হয়েছে।
বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণটি 3D -এর মাধ্যমে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন স্টলের পাশে প্রদর্শন করা হয়েছে।
৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত এই মেলা চলবে, সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত এ মেলা খোলা থাকবে। মেলায় প্রবেশ টিকিটের মূল্য অপ্রাপ্তবয়স্কদের ২০ টাকা এবং প্রাপ্ত বয়স্কদের ৩০ টাকা। স্টল মালিকরা প্রত্যাশা করছেন এবার গতবারের চেয়ে বেশি বিক্রয় হবে এবং সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থায় তারা সন্তুষ্ট।